English

ঘরের মধ্যে ঘর করার প্রতিযোগিতা করবেন না, অসুস্থ রাজনীতি করলে মনোনয়ন পাবেন না: কাদের

১০ জুলাই ২০১৭, ১৬:২৪

আওয়ামী লীগের নেতাদের উদ্দেশে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের আজ সোমবার দুপুরে যশোর ঈদগাহ মাঠে জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন।  ঘরের মধ্যে ঘর করার প্রতিযোগিতা করবেন না, অসুস্থ রাজনীতি করলে মনোনয়ন পাবেন না: কাদের

আগামী সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, ‘সারা দেশে বিভিন্নভাবে জননেত্রী শেখ হাসিনা জরিপ করছেন। তৃণমূলের মতামতের ভিত্তিতে গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদের মনোনয়ন দেওয়া হবে। যাঁদের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে, জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্যতা নেই, তাঁদের মনোনয়ন দেওয়া হবে না।’

ছাত্রলীগের উদ্দেশে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা মাদককে “না” বলব। ইয়াবাকে “না” বলব। দুর্নীতিকে “না” বলব। জঙ্গিবাদকে “না” বলব। ছাত্রলীগকে মেধার রাজনীতি করতে হবে।’

বিএনপির উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘একটি রাজনৈতিক দল আছে। যে দলটি আট বছরে আট দিনও রাস্তায় নামতে পারেনি। বিএনপির রাজনীতি এখন তর্জন-গর্জনের সার। ফকরুল সাহেবরা ঈদের পরে আন্দোলনের কথা বলেন। কোন ঈদ। রোজার ঈদ, নাকি কোরবানির ঈদ। ঈদের পর ঈদ গেল। কিন্তু বিএনপির মরা গাঙে জোয়ার এল না।’

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম রিয়াদের সভাপতিত্বে সম্মেলনে ছাত্রলীগের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘অনিয়মিত-অছাত্র ও মাদকাসক্তরা যেন ছাত্রলীগের কমিটিতে স্থান না পায়। পরে যেন না শুনি তাদের কমিটিতে রাখা হয়েছে। কমিটি বিলম্বিত হলে অযোগ্যরা স্থান পেয়ে যায়। এ জন্য যশোরের কমিটি যশোর থেকেই ঘোষণা করতে হবে। কমিটি ঢাকায় নেওয়া হলে অযোগ্যরা কমিটিতে স্থান পেয়ে যায়। কমিটি ঢাকায় গেলে ঘাটে ঘাটে অন্ধকারের খেলা হয়। নানা লবিং হয়, কেন্দ্রীয় নেতারা ঠিকমতো কাজ করতে পারে না।’

সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, সদস্য এস এম কামাল হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী সাইফুজ্জামান শিখর, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বদিউজ্জামান সোহাগ, যশোরের সাংসদ শেখ আফিল উদ্দিন, মনিরুল ইসলাম, কাজী নাবিল আহমেদ, রণজিৎ কুমার রায় ও স্বপন ভট্টাচার্য, যশোর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান পিকুল, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার, যশোর পৌরসভার মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু, কেশবপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এইচ এম আমির হোসেন, বেনাপোলের পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম লিটন প্রমুখ।

সম্মেলন উদ্বোধন করেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ। প্রধান বক্তা ছিলেন সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন। সভা পরিচালনা করেন জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন।

সর্বাধিক ক্লিক