English

বহুল আলোচিত দিপ্তি এখন শ্বশুর বাড়ীতে অবস্থান করছেন

২৭ জুলাই ২০১৭, ০৪:০৪

ভোলা প্রতিনিধি >
বহুল আলোচিত ভোলার লালমোহনের মুদি ব্যবসায়ী কালিপদ দাসের ছেলে উজ্জল চন্দ্র দাসের স্ত্রী দিপ্তি রানী দাসের গর্ভের সন্তানের পিতৃত্বের দাবীতে মানব বন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ মানব বন্ধনের পর পরই দিপ্তি তার স্বামী ও সন্তানের অধিকার নিয়ে শ্বশুর কালিপদের ঘরে প্রবেশ করে। ঘটনা সূত্রে জানাগেছে, দেড় বছর পূর্বে কালিপদের ছেলে উজ্জল ঢাকার গাজীপুরে প্রেম করে দিপ্তিকে বিয়ে করে। বিয়ের পর উজ্জল দিপ্তির সাথে দেড় বছর সংসার করার পর তাকে একা ফেলে রেখে অন্যত্র পালিয়ে যায়। ইতমধ্যে দিপ্তির গর্ভে জন্ম নেয় উজ্জলের সন্তান। এরপর দিপ্তি কোন উপায়  না পেয়ে গত ১৭ মে লালমোহনে উজ্জলের বাবার কাছে চলে আসে। উজ্জলের বাবা পূত্রবধু দিপ্তিকে তার ঘরে উঠতে না দিয়ে. তাকে এলাকা ছাড়া করার জন্য তার ক্যাডার বাহিনী দিয়ে লাঞ্চিত করে। এর পর অন্তস্বত্তা দিপ্তি অসুস্থ্য অবস্থায় গত ৩ মাস যাবৎ তার অধিকার আদায়ের জন্য পথে পথে ঘুড়ে মানবেতর জীবনযাপন করে। সর্বশেষ দিপ্তি সব দিকে ব্যার্থ হয়ে বুধবার দুপুরে লালমোহন বাজারে একটি মানব বন্ধন কর্মসূচী পালন করে। এ মানব বন্ধনের পরপরই দিপ্তি শ্বশুর কালিপদের বসত ঘরে প্রবেশ করে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দিপ্তি বর্তমানে শ্বশুরের ঘরেই অবস্থান করছে। দিপ্তি জনায়, এমুহুর্তে কালিপদের পালিত ক্যাডার বাহিনী তাকে বিভিন্ন ভাবে হুমকী ধামকি দিচ্ছে, যাতে সে এলাকা ছেড়ে চালে যায়। দিপ্তি আরো জানায়, কেহ যদি তাকে শ্বশুরের ঘর থেকে বেড় করতে চেষ্টা করে, তবে সে সেখানেই আত্মহত্যা করবে এবং এর জন্য সম্পূর্ণ দায়ী থাকবেন উজ্জলের বাবা কালিপদ দাস।

সর্বাধিক ক্লিক