• ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কাঠমিস্ত্রিকে হত্যার দায়ে চারজনের যাবজ্জীবন

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত নভেম্বর ১৪, ২০২৩, ১৭:২২ অপরাহ্ণ
কাঠমিস্ত্রিকে হত্যার দায়ে চারজনের যাবজ্জীবন

দুই দশক আগে রাজধানীর পল্লবীতে কাঠমিস্ত্রি শেখ মো. আব্বাস হত্যা মামলায় চারজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

 

 

মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) ঢাকার বিশেষ দায়রা জজ আদালত-৫ এর বিচারক ইকবাল হোসেনের আদালত এ রায় দেন। কারাদণ্ডের পাশাপাশি প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে তাদের আরও ৬ মাসের সাজা দেওয়া হয়েছে। তবে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় ৬ আসামির বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।

 

 

যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন-পঞ্চনন্দ সরকার, আ. ছাত্তার ওরফে ল্যাংড়া ছাত্তার, লক্ষণ ও স্বপন। এদের মধ্যে পঞ্চনন্দ কারাগারে ছিলেন। রায়ের আগে তাকে আদালতে হাজির করা হয়। রায় শেষে সাজা পরোয়ানা দিয়ে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অপর তিন আসামি পলাতক থাকায় তাদের বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানাসহ গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

 

খালাস পাওয়া আসামিরা হলেন- জুয়েল ওরফে আবুল খায়ের, দুখাই ওরফে গণেশ চন্দ্র শীল, নীলকান্ত মণ্ডল, ভবেন চন্দ্র সরকার, শামীম ও সিরাজ ওরফে সিরাজুল ইসলাম।

 

 

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ভিকটিম শেখ মো. আব্বাস সঙ্গী মনির হোসেনের সঙ্গে কাজ শেষে ২০০৩ সালের ১১ মে রাত দেড়টার দিকে বাসায় ফিরছিলেন। পথিমধ্যে উত্তর কালশী এলাকায় রাস্তার ওপর আব্বাসকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে।

 

 

ঘটনার পর দিন আব্বাসের ভাই শেখ আক্কাস আলী পল্লবী থানায় মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত করে ২০০৪ সালের ১৩ জুন পল্লবী থানার সাব-ইন্সপেক্টর মিরাশ উদ্দিন আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। পরে আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। মামলার বিচার চলাকালে ১২ জন আদালতে সাক্ষ্য দেন।