English

বরিশালের মেয়র নির্বাচনের আ’লীগের টিকেট পাচ্ছেন সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ!

১১ জুলাই ২০১৭, ১৭:২৭

মোঃ ফেরদাউছ সিকদারঃ এবারের মেয়র বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনের আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী সম্ভাব্য হতে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফুবাতো ভাই আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ’র ছেলে সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ। সে আওয়ামী লীগের হাইকমান্ডের ব্যপক আলোচনায় রয়েছেন।

 

বরিশাল একটি গুরুত্বপুর্ন নির্বাচনী এলাকা। গত বছরে বরিশালে বিএনপি জামায়াতের বিভিন্ন অপপ্রচারের কারনে আ’লীগের পরাজয় হয়েছে বলে মন্তব্য করেন দলের উচ্চনেতারা কিন্তু এবার বরিশাল নগর বাসির সেই ভুল ভেঙ্গেগেছে। বরিশাল ছিল বিএনপি-জামায়াতের ঘাটি বর্তমানে বরিশালে আমাদের উন্নয়ন আর দলটি শক্ত এবং অভিজ্ঞ লোকদের পরিচালনায় বরিশাল এখন আ’লীগের ঘাটি হয়েছে।

 

কেন্দ্রসূত্রে জানাযায়, এবারের নির্বাচনে বরিশাল সিটি মেয়র আ’লীগের প্রার্থীকেই জয় করতে সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ’কে নিয়ে বেশিই আলোচনায় আসছে। তার মধ্যে এমন কয়েক জনেই বলেন বর্তমানে বরিশালে রাজনিতীতে সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ অনেকটাই এগিয়ে আছেন এবং বরিশালে সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ’কে নাকি সবাই ভালবাসে। এবারের আ’লীগের নতুন কমিটিতে সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ’কে বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বানানোর পর সে সংগঠনকে শক্ত করে ধরে রেখেছেন। এখন রাজনিতীতে তার অবদান বেশি। তবে নিচ্ছিৎ পাবেন এটি নির্ভর করবে নির্বাচনের আগমুহূর্তের সিদ্ধান্তের ওপর। এই নির্বাচনের পরই অনুষ্ঠিত হবে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন। তাকে নিয়ে এমন ব্যাপক আলোচনায় রয়েছেন নীতিনির্ধারকরা। বরিশালের আ’লীগের নেতাকর্মীরা ইতিমধ্যেই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জয় করার চিন্তা করছেন।

 

এবিষয় দলটির বিভিন্ন নেতারাও জানিয়েছেন, বাংলাদেশ আ’লীগ মানেই উন্নয়ন, এই উন্নয়নকে ধরে রাখতে যোগ্যতা, জনপ্রিয়তা এবং মেধা ও নতুন তরুনদের দরকার। সেই চিন্তা ভাবনায় বরিশালের মেয়র পদটি দলীয় টিকিট দেওয়া হবে এমন একজনকেই যার সকল যোগ্যতা আছে।

 

এবিষয়ে মেয়র প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ’র কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি মেয়র পদে নির্বাচন করবে এটা ঠিক। কিন্তু কেন্দ্রে থেকে আমাকেই দলীয় মনোনয়ন দিচ্ছেন তা আমি এখনো সঠিক জানিনা। যদি দলীয় মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচন করতে পারি তাহলে ইনশাআল্লাহ জয় আমাদের হবে।

 

নির্বাচনী বিষয়ে জেলা ছাত্র লীগের সভাপতি সুমন সেরনিয়াবাতের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বরিশাল মানেই সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ। বরিশারে মেয়র মরহুম শওকত হোসেন হিরুন ভাই মারা জাওয়ার পরে সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ অবহেলিত বরিশাল আ’লীগ’কে চাঙ্গা করে তুলেছেন। তাছাড়া বর্তমানে সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ’র রাজনিতীর যোগ্যতা এবং জনপ্রিয়তা অনেক বেশি। আমি চাই কেন্দ্রে থেকে তাকে যদি দলীয় মনোনয়ন দেয় তাহলে বরিশাল উন্নয়নের অভাব হবেনা।

 

নির্বাচনী বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক কাজী মারুফ হাসান টিটু ’র কাছে জানতে চাইলে বলেন, আমরা চাই বরিশালের মেয়র হিসেবে যোগ্যপ্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ ভাইকে কেন্দ্র থেকে দলীয় মনোনয়ন দেয়। তাহলে পুরো বরিশাল উন্নয়নের ছোয়ায় আলিক বরিশাল হবে।

 

এবিষয় বরিশাল মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড, বরিশাল মহানগর সিনিয়র সদস্য মাহিদ খান বলেন, আমি সঠিক জানিনা কেন্দ্র থেকে দলীয় মনোনয় দিয়েছে কিনা কিন্তু আমি মনি করি বরিশালের রাজনিতীর মধ্যে বর্তমানে সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ একজন যোগ্যপ্রার্থী। মেধাবী তরুন। যদি দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয় তাহলে সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহকেই দেয়।

 

অপরদিকে দেখা যাচ্ছে বরিশালে মেয়র নির্বাচন আসার আগেই সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ’কে নিয়ে নির্বাচনী হাওয়া বইছে পুরো বরিশালবাসীতে। চায়ের দোকানে আর রাস্তাঘাটে সবার মুখে একটাই গল্প এবারের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ।

 

সাধারণ জনগনের কাছে নির্বাচনী আগাম মতামতের জন্য জানতে চাইলে, বলেন বর্তমানে যোগ্যপ্রার্থী এবং মেধাবী তরুন সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ মেয়র হলে বরিশাল বাসী ফিরে পাবে উন্নয়নের নতুন জৌবন।

সর্বাধিক ক্লিক